নীড় / ভ্রমণ / ঢাকা থেকে সিলেট যাওয়ার উপায়.!
dhaka to sylhet

ঢাকা থেকে সিলেট যাওয়ার উপায়.!

বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বে অবস্থিত একটি সমৃদ্ধ জেলার নাম সিলেট। ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সিলেট জনপদ পর্যটকদের কাছে অনেক জনপ্রিয় একটি স্থান। হযরত শাহ জালাল (র:) স্মৃতিধন্য সিলেটে আছে উপমহাদেশে সর্বপ্রথম প্রতিষ্ঠিত মালনীছড়া চা বাগান, জাফলং, সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান, বিছনাকান্দি, রাতারগুল জলাবন, লালাখাল, হাকালুকি হাওর সহ বেশকিছু দর্শনীয় স্থান। এছাড়াও হযরত শাহজালাল (র:) ও শাহপরাণ (র:) এর মাজার আগত দর্শনার্থীদের মনে পবিত্রতার পরশ বুলিয়ে দেয়। শুধু ভ্রমণ নয়, প্রতিদিন হাজারো প্রয়োজনে অনেকেই ঢাকা হতে সিলেটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। ভ্রমণ গাইডের আজকের আয়োজনে চলুন জেনে নেয়া যাক ঢাকা হতে সিলেট যাওয়ার উপায়, খরচ এবং প্রয়োজনীয় ভ্রমণ পরামর্শ।

#যেভাবে ঢাকা থেকে সিলেট যাবেন…

ঢাকা থেকে সড়ক, রেল এবং আকাশ পথ এই তিন উপায়ে সিলেট যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। আর নৌপথে/জলপথে ঢাকা হতে সিলেট গমন একটি অপ্রচলিত মাধ্যম। ঢাকা হতে সড়ক পথে সিলেটের দূরত্ব ২৪১ কিলোমিটার এবং রেলপথে ৩১৯ কিলোমিটার।

#সড়ক পথে/বাসে সিলেট যাওয়ার উপায়

ঢাকার সায়দাবাদ, ফকিরাপুল, কল্যানপুর, আরামবাগ সহ বেশকিছু স্থান হতে সিলেট যাওয়ার এসি/নন-এসি বাসে চড়তে পারবেন। এদের মধ্যে আল-মোবারাকা, হানিফ, শ্যামলী, এনা, ইউনিক, মামুন, সাউদিয়া, গ্রীনলাইন, আর পি এলিগ্যান্স, সেইন্টমার্টিন পরিবহন, লন্ডন এক্সপ্রেস এবং গোল্ডেন লাইন পরিবহন প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। এসব বাসে সিলেট পৌঁছাতে সাড়ে ৪ থেকে ৬ ঘন্টা সময় লাগে। নন-এসি বাসের জনপ্রতি ভাড়া ৪৭০ টাকা। আর এসি বাসের রেগুলার ভাড়া জনপ্রতি ৯৫০ টাকা এবং এক্সিকিউটিভ ভাড়া ১২০০ টাকা।

আল-মোবারকা পরিবহন : ০২-৭৫৫৩৪৮৩, ০৪৪৭৭৮০৩৪২২, মোবাইল: ০১৭২০-৫৫৬১১৬, ০১৮১৯-১৮৩৬১১, ০১৭১৫-৮৮৭৫৬৬
সোহাগ পরিবহন : ০২-৯৩৩১৬০০ (ফকিরাপুল), ৯১৩২৩৬০ (কমলাপুর), ৯১৩২৩৬০ (কল্যাণপুর), ৭১০০৪২২ (আরমবাগ)
গ্রীণ লাইন পরিবহন : ০২-৭১৯১৯০০ (ফকিরাপুল), ০১৭৩০-০৬০০৮০ (কল্যাণপুর)
হানিফ এন্টারপ্রাইজ : মোবাইল ০১৭১৩-৪০২৬৬১ (কল্যাণপুর)
শ্যামলী পরিবহন : ০২-৯০০৩৩১, ৮০৩৪২৭৫ (কল্যাণপুর)

#রেলপথ/ট্রেনে সিলেট যাওয়ার উপায়…

ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে বেশকিছু আন্তঃনগর এবং মেইল ট্রেন সিলেটের পথে চলাচল করে।

৭১০ পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে মঙ্গলবার ছাড়া সপ্তাহে ৬ দিন ভোর ০৬ টা ৩৫ মিনিটে সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় আর সিলেট হতে ছাড়ে দুপুর ০৩ টায়।

১৮ জয়ন্তীকা এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে প্রতিদিন দুপুর ১২ টায় সিলেটের পথে যাত্রা করে। আর সিলেট হতে বৃহস্পতিবার ছাড়া সপ্তাহের ৬ দিন সকাল ০৮ টা ৪০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছাড়ে।

৭৪০ উপবন এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে বুধবার ছাড়া প্রতিদিন রাত ০৯ টা ৫০ মিনিটে ছেড়ে যায়। আর সিলেট হতে রাত ১০ টায় ছেড়ে আসে।

৭৭৪ কালনী এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে শুক্রবার ছাড়া প্রতিদিন বিকাল ০৪ টায় সিলেটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। আর সিলেট হতে সকাল ০৭ টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

#ট্রেনের টিকেটের ভাড়া

  • শোভন – ২৬৫ টাকা;
  • শোভন চেয়ার – ৩২০ টাকা;
  • ১ম শ্রেণির চেয়ার – ৪২৫ টাকা;
  • ১ম শ্রেণির বাথ – ৬৪০ টাকা;
  • স্নিগ্ধা – ৬১০ টাকা;
  • এসি সীট – ৭৩৬ টাকা এবং
  • এসি বাথ – ১,০৯৯ টাকা।

#ট্রেন সম্পর্কিত তথ্যের জন্য জানতে যোগাযোগ-

কমলাপুর রেলওয়ে ষ্টেশন
ফোন: ০২-৯৩৫৮৬৩৪, ৮৩১৫৮৫৭, ৯৩৩১৮২২
মোবাইল: ০১৭১১-৬৯১৬১২

বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন
ফোন: ০২-৮৯২৪২৩৯
ওয়েবসাইট: www.railway.gov.bd

#ঢাকা হতে আকাশ পথ/বিমানে সিলেট যাওয়ার উপায়

ঢাকা থেকে অতি অল্প সময়ে বিমানে চড়ে সরাসরি সিলেট আসা যায়। আকাশ পথে সিলেট আসতে মাত্র ৪৫ থেকে ৫০ মিনিট সময় লাগে। ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশ বিমান, নভোএয়ার এবং ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের সিলেটগামী ফ্লাইট রয়েছে। বর্তমানে সপ্তাহে প্রায় ৩০ টিরও বেশী ফ্লাইট ঢাকা-সিলেট রুটে পরিচালিত হচ্ছে। তবে বলে রাখা ভাল, অন্য সকল ফ্লাইটের মত ঢাকা-সিলেট ফ্লাইটও কতৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরিবর্তিত হতে পারে।

#ঢাকা টু সিলেট বিমান টিকেটের মূল্য…

বিমান সংস্থা সর্বনিন্ম ভাড়া সর্বোচ্চ ভাড়া
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৩,০০০ টাকা ৭,০০০ টাকা
নভোএয়ার ২,৭০০ থেকে ২,৯৯৯ টাকা ৬,৬০০ টাকা
ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স ২,৬৯৯ থেকে ২,৯৯৯ টাকা ৬,০০০ টাকা

বিমান ভাড়া সব সময় ভ্রমণের তারিখ অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়। ভ্রমণ তারিখের নূন্যতম মাসখানেক আগে বিমানের টিকেট কাটলে সাধারণত ভাড়া কিছুটা কমে। আবার ভ্রমণের তারিখের খুব কাছাকাছি সময়ে টিকেট কাটলে অনেকক্ষেত্রে টিকেটের স্বাভাবিক মূল্যের চেয়ে দ্বিগুণ বা তিনগুণ অর্থ ব্যয় করতে হয়।

মনে রাখবেন, বাংলাদেশের আভ্যন্তরিন রুটে বিমান ভ্রমণ করতে পাসপোর্টের প্রয়োজন হয় না। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে জাতীয় পরিচয়পত্র সাথে বহন করা বাঞ্ছনীয়।

প্রত্যেক ইকোনমি ক্লাসের যাত্রী ২০ কেজি পরিমাণ চেক কৃত এবং ৭ কেজি কেবিন লাগেজ হিসাবে মালামাল বহন করতে পারবেন। আর বিজনেস ক্লাসের যাত্রীগণ বহন করতে পারবেন ৩০ কেজি এবং ৭ কেজি মালামাল। নির্ধারিত পরিমাণের চাইতে বেশী মালামাল পরিবহন করতে চাইলে সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্সের নিয়মানুসারে অতিরিক্ত ফি প্রদান করতে হবে।

সম্বন্ধে অর্ণব সাহা

এছাড়াও পড়ুন

cox'z bazar sea beach

ঢাকা থেকে সহযেই কক্সবাজার যাওয়ার উপায়.!

দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্যটন স্থানের নাম কক্সবাজার (Cox’s Bazar)। শুধু বাংলাদেশ নয়, পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × four =