নীড় / ভ্রমণ / বিমান সুন্দরীগণ সেদিন আমার কথা রাখলেন না

বিমান সুন্দরীগণ সেদিন আমার কথা রাখলেন না

স্বপ্ন ডানায় ভর করে উড়ছি আকাশে। গত কয়েকদিন আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে চষে বেড়ালাম। আজ অনিচ্ছা স্বত্বেও ফিরে আসতে বাধ্য হলাম। প্লেনের জানালা দিয়ে আনমনে বাহিরের দৃশ্য দেখছিলাম। শূন্য থেকে মহাশূন্যে মেঘেরা দল বেধে ছুটাছুটি করছে। যেন হাত বাড়ালেই আমি ধরতে পারি মেঘমালাকে। বিচিত্র রূপে সজ্জিত হয়ে তারা আমায় ডাকছে। যেন আমি তাদের মাঝে বিলীন হয়ে যাই।

এর মাঝে চারজন সুন্দরী বিমানবালা (বিমান সুন্দরীগণ) আমার সামনে…!

আপনি কি মিস্টার জাফর? তাদের একজন আমায় জিজ্ঞেস করলো। আমি হা বলার সাথে সাথে চারজন সমস্বরে বলে উঠলো- Happy Birthday To You… আরও অনেক কিছু বলেছিল হয়ত! ঘোরের মাঝে আমার কিচ্ছু মনে নেই। তারপর বিশাল একটা কেক ধরিয়ে বললো এটা আমাদের তরফ থেকে আপনার জন্য জন্মদিনের উপহার!!

বিমান সুন্দরীগণ সেদিন আমার কথা রাখলেন না - GoArif
বিমান সুন্দরীগণের উপহার দেয়া জন্মদিনের কেক

আমি হাসবো নাকি কাঁদবো কিচ্ছু বুঝতেছি না।

বললাম আফাগন আইজ আমার জন্মদিন না। কিন্তু কে শুনে কার কথা। আমার পাসপোর্ট নিল, বডিং পাস চেক করলো। তারপর নিশ্চিত হয়ে বললো, আমরা কোন ভুল করি নি। ১০০% নিশ্চিত হয়েই বলছি, আপনার জন্যই এই কেক!

পুরো বিমানের সব যাত্রীগন শুনছে আজ আমার জন্মদিন। তাই আমার আর কিচ্ছু করার ছিল না। চার সুন্দরী অনেকটা বাধ্য করেই আমাকে দিয়ে কেক কাটালো। বিমানবালাদের হাততালির মাঝে আমি কেক কাটলাম!

তারপর বসে বসে কেক খাই। কিন্তু কেক তো আমার গলা দিয়া নামে না! কি হয়ে গেলো এসব। কার জন্মদিন আমারে দিয়া পালন করা হলো। সুন্দরী বিমানবালাদের কত্ত করে বললাম আমার জন্মদিন না! কিন্তু তারা শুনলো না! কেক খাওয়াইয়া তারা চলে গেলো….

ঘটনার ঘোরে আমি আর কিচ্ছু কইলাম না… চুপচাপ বাহিরে চোখ মেলে রইলাম….. জীবন আমারে নিয়া খেলেই যাচ্ছে! আমার সাথেই কেন এমন হয়???

কেন, কেন, কেন বনলতা???


বিমান সুন্দরীগণ সেদিন আমার কথা রাখলেন না – পোর্ট ব্লেয়ার, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ

সম্বন্ধে ডলি খাতুন

এছাড়াও পড়ুন

mahishadal rajbari

ঐতিহ্যে, গৌরবে আজও অমলিন মহিষাদল রাজবাড়ির রথযাত্রা

ইন্টারনেট, তাও আবার চতুর্থ প্রজন্ম বা 4G এর যুগে আজও স্বগৌরবে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 − two =